এবি পার্টিতে যোগ দিলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ২৫ নেতা

এবি পার্টিতে যোগ দিলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ২৫ নেতা

এবি পার্টিতে যোগ দিলেন বিএনপি-জামায়াতসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের ২৫ নেতা। সোমবার বিকাল ৪টায় ঢাকার বিজয় নগরস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যেমে তাদের বরণ করে নেয় দলটি।

 

অনুষ্ঠানে এবি পার্টির নীতি কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদান করেন জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগর শ্রমিক নেতা মো. আনোয়ার হোসেন (আনোয়ার ফারুক), ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক তরিকুল ইসলাম তারেক, জামায়াতে ইসলামী কদমতলী থানার সাবেক নায়েবে আমির আনোয়ার হোসেন, নিউমার্কেট থানা শ্রমিককল্যাণ ফেডারেশনের সেক্রেটারি মোতাহের হোসেন, বেলকুচি থানা ছাত্রদলের সাবেক সেক্রেটারি, বিএনপি নেতা শাহাদাত হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা বিবর্তন ফাউন্ডেশনের সদস্য কেফায়েত হোসেন তানভীর, সাবেক সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট নেতা গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির সাবেক সভাপতি ইঞ্জি. মহিবুল্লাহ মহিব, নারী সংগঠক ইভানা শাহীন, ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরীর সাবেক ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক ওমর ফারুক, জাসদ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক তানভীর আহমেদ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রমিক নেতা মাইনুদ্দিন পাটোয়ারী, সাবেক জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নেতা জামাল হোসেন, ৫৭নং ওয়ার্ড জামায়াতের সাবেক সভাপতি নূরনবী, সমাজসেবক হারুন অর রশীদ, সাবেক জামায়াত নেতা, ছাত্রশিবির মহানগরী উত্তর এর সাবেক ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, সাবেক বিএনপি নেতা এনামুল হক, নারী অধিকারকর্মী তানজিমা রায়হান, সমাজকর্মী কাজল মিয়া, বাংলাদেশ ছাত্রকল্যাণ পার্টির সাবেক সভাপতি মো. ওমর ফারুক, যুবনেতা সায়মান খান, শ্রমিককল্যাণ ফেডারেশন নেতা মনিরুল ইসলাম, সমাজকর্মী মেসবাহ উদ্দিন, রাশেদুল ইসলাম, সাবেক শিবির নেতা মো. কামরুজ্জামান সৈকত, বাকী বিল্লাহ, মো. নূরুল করিম, মো: পিপলু।

 

এবি পার্টির আহ্বায়ক সাবেক সচিব এএফএম সোলায়মান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সদস্য সচিব বিএম নাজমুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী।

 

যোগদানকৃতদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কলামিস্ট ও নারী অধিকার নেত্রী রুবী আমাতুল্লাহ, এবি পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব আবু হেনা মো. এরশাদ হোসেন সাজু, এবি পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু, যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার যুবায়ের আহমেদ ভূঁইয়া, সহকারী সদস্য সচিব এডভোকেট আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, এবিএম খালিদ হাসান, আমিনুল ইসলাম এফসিএ, আনোয়ার সাদাত টুটুল, এএফ ওবাইদুল্লাহ মামুন, শাহ আব্দুর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার মো. লোকমান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার নাসরিন সুলতানা মিলি প্রমুখ।

 

ড. দিলারা চৌধুরী বলেন, অপরাজনীতি অব্যাহত থাকায় বাংলাদেশের গণতন্ত্র, সংবিধান, বিচারব্যবস্থা ধ্বংস হয়েছে অনেক আগেই। এখন দেখা যাচ্ছে, জাতীয় ঐক্যের প্রতীক অন্যান্য প্রতিষ্ঠানও কলুষিত হওয়ার পথে। রাজনীতির নামে চলছে ব্যবসা। দেশের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত। এখান থেকে পরিত্রাণ পেতে আমাদের জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। একটি নবগঠিত রাজনৈতিক দল হিসেবে এবি পার্টি এব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবেন বলে আমরা আশা করি।

 

বিশেষ অতিথি নারী নেত্রী ও মানবাধিকারকর্মী রুবী আমাতুল্লাহ বলেন, সবার উপরে রাষ্ট্রের স্বার্থকে গুরুত্ব দিয়ে এবং পার্টিকে গণতান্ত্রিক উপায়ে চালালে ভবিষ্যতে এবি পার্টি নিঃসন্দেহে তার লক্ষ্যে পৌঁছতে সক্ষম হবে ইনশাআল্লাহ।

 

এবি পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু বলেন, রাজনীতি হলো মানুষের কল্যাণের জন্য সংগ্রাম। এবি পার্টি সেই সংগ্রাম সফল করে বাংলাদেশকে কল্যাণ রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলবে।

 

সুত্রঃ যুগান্তর 
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *