মামলা তুলে না নেওয়ায় যুবককে গুলি করে হত্যাচেষ্টা

মামলা তুলে না নেওয়ায় যুবককে গুলি করে হত্যাচেষ্টা

নোয়াখালীতে মামলা তুলে না নেওয়ায় ওমর ফারুক (৩০) নামের এক যুবককে গুলি করে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয় সন্ত্রাসী কালা বাবু এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আহত ওমর ফারুক গোপালপুর ইউনিয়নের দেবকালা গ্রামের খুরশিদ আলমের ছেলে।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত এক বছর আগে স্থানীয় সন্ত্রাসী কালা বাবু তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে ওমর ফারুকের মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত করে। ওই ঘটনায় ফারুক বাদী হয়ে কালা বাবুকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তারপর থেকে মামলাটি তুলে নিতে ফারুককে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকে কালা বাবু। পরে মামলা তুলে না নেওয়ায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কালা বাবু ফারুককে গুলি করে হত্যাচেষ্টা করে। পরে রাত ১০টা দিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গুলিবিদ্ধ ফারুককে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাহিদ নূর তুষার জানান, ওমর ফারুক নামের ওই যুবকের বাম পাঁজরে শটগানের গুলি লেগেছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

 

আহত ফারুক অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার মোল্লাপুর গ্রামের জাফর উল্যার ছেলে ও সন্ত্রাসী কালা বাবু আমাকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে চাপ দিয়ে আসছিল। এর সূত্র ধরে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কালা বাবু আমাদের ঘরে এসে আমার বুকের বাম পাশে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে চলে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আগের একটি মামলা তুলে না নেওয়ায় মামলার আসামি সন্ত্রাসী কালা বাবু ওমর ফারুককে গুলি করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *