মৃত্যুর পর আপনার ফেসবুক আইডি কে পাবে?

মৃত্যুর পর আপনার ফেসবুক আইডি কে পাবে?

আধুনিক যুগে বেশির ভাগ মানুষেরই বিচরণ সামাজিকমাধ্যমে। পারস্পরিক যোগাযোগ, অফিসের কার্যক্রম, ব্যবসা-বাণিজ্য থেকে শুরু করে চিকিৎসার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজও এখন সহজ হচ্ছে সামাজিকমাধ্যমের কল্যাণে।

তবে সব ধরনের সামাজিকমাধ্যমে নিজের বা প্রতিষ্ঠানের নামে অ্যাকাউন্ট (আইডি) খুলতে হয়। বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় সামাজিকমাধ্যমের মধ্যে ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, টিকটক, লাইকি অন্যতম।

এর মধ্যে দুনিয়াজুড়ে সমানতালে জনপ্রিয়তা রয়েছে ফেসবুকের। এই সামাজিকমাধ্যমটিতে যে কোনো কার্যক্রম করতে গেলে প্রথমে আপনাকে একটি অ্যাকাউন্ট ওপেন করতে হবে। পরবর্তী সেই আইডি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ভেরিফাই করে নেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

ফেসবুকে কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় একটি আইডি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। এ জন্য প্রত্যেক আইডির সুরক্ষার ব্যবস্থা রেখেছে ফেসবুক। কিন্তু আইডির মালিক মারা গেলে তখন কী হবে?

সাধারণত কোনো আইডির মালিক মারা গেলে ফেসবুক নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ায় তার আইডিটি স্মৃতি হিসেবে রেখে দেয়। তখন ওই আইডি থেকে আর কোনো কার্যক্রম করা যায় না। তবে পূর্বের মতো ওই আইডির পোস্ট অন্যরা দেখতে পান।

কিন্তু আইডি স্মৃতি হিসেবে রাখার পাশাপাশি ব্যক্তি চাইলে এটি পরিচালনার জন্য একজনকে নমিনি করে রাখতে পারেন। এ জন্য মৃত্যুর আগেই নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে ফেসবুককে জানিয়ে রাখতে হবে কে তার আইডির নমিনি হবে।

আপনার মৃত্যুর পর আইডি শুধু স্মৃতি হিসেবে থাকবে নাকি কেউ নমিনি হবে তা ঠিক করতে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে।

১. প্রথমে আইডিটি লগইন করে সেটিংয়ে যেতে হবে।

২. সেটিংসে জেনারেল (Generel) এ ক্ষেত্রে সেখানে জেনারেল অ্যাকাউন্ট সেটিংস (General Account Settings) অপশন দেখা যাবে। এর মধ্যে মেমোরিয়ালাইজেশন সেটিংস (Memoriallisation Settings) এই অপশনের ডান পাশে এডিট-এ ক্লিক করতে হবে।

৩. এডিট-এ ক্লিক করার দুইটি অপশন পাওয়া যাবে। প্রথম: আপনি যদি আপনার মৃত্যুর পর কাউকে এই আইডি পরিচালনার দায়িত্ব দিতে চান তাহলেও Choose a Friend অপশনে তার আইডি লিখতে হবে। এবার তার আইডি সিলেক্ট হলে ডান পাশে অ্যাড (Add) অপশনে ক্লিক করুন।

৪. দ্বিতীয়: আপনি যদি আপনার মৃত্যুর পর আইডিটি ডিলিট করে দিতে চান তাহলে নিচের দিকে Request that your account be deleted after you pass away লেখার উপর ক্লিক করুন।

এই দুটি অপশন থেকে আপনি যেটি সিলেক্ট করবেন ফেসবুক সেটি তার ডাটাবেজে সংরক্ষণ করবে। এবং আপনার মৃত্যুর পর সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে।

আপনার অ্যাকাউন্ট পরিচালনার অনুমতি পেলেও আপনার মতো করে সব কাজ তিনি করতে পারবেন না। নির্দিষ্ট কিছু কাজ তিনি করতে পারবেন। সেগুলো হলো-

১. আপনার মৃত্যুর বিষয়ে সবাইকে জানানোর জন্য একটি চূড়ান্ত পোস্ট দিতে পারবেন। তবে তিনি সাধারণ আইডির মালিকদের মতো অন্যান্য পোস্ট দিতে পারবেন না।

২. আপনার পোস্ট কে দেখবে বা কে দেখবে না তা তিনি ঠিক করতে পারবেন।

৩. পোস্ট ডিলিট করতে পারবেন।

৪. আপনাকে ট্যাগ দেওয়া পোস্ট কারা দেখতে পারবেন তা তিনি ঠিক করতে পারবেন।

৫. আপনাকে ট্যাগ দেওয়া পোস্ট থেকে ট্যাগ রিমুভ করতে পারবেন।

৬. ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট গ্রহণ করতে পারবেন।

৭. প্রোফাইল ছবি ও কভার ছবি পরিবর্তন করতে পারবেন।

৮. আইডি রিমুভ করার রিকুয়েস্ট করতে পারবেন।

৯. আপনার টাইমলাইনে ট্যাগ ও পোস্ট রিভিউ অন করা থাকলে সেটি অফ করতে পারবেন।

১০. আপনি ফেসবুকে যা কিছু শেয়ার করেছিলেন তা যদি ডাউনলোড অপশন অন করে রাখেন তাহলে তিনি ডাউনলোড করতে পারবেন।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, ভবিষ্যতে তারা এই নিয়মের পরিবর্তন আনতে পারে।

তবে অ্যাকাউন্ট পরিচালনার অনুমতি পেলেও তিনি তিনটি কাজ কোনোভাবেই করতে পারবেন না।

১. আপনার আইডিতে লগইন করতে পারবেন না।

২. আপনার মেসেজ দেখতে পারবেন না।

৩. কোনো বন্ধুকে আনফ্রেন্ড করতে বা নতুন কাউকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবেন না।

উল্লেখ্য, ফেসবুক আইডির নমিনি যাকে করবেন তার বয়স অবশ্যই ১৮ বছরের ওপর হতে হবে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *