কাবিরুল ইসলাম গোমস্তাপুর
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর- আড্ডা সড়কে একের পর এক রোড ডাকাতির ঘটনা ঘটেই চলেছে। রহনপুর ইউনিয়নের মিশন মোড়, পার্বতীপুর ও রহনপুর ইউনিয়নের শেষ সীমানায় মূসা মার্চেন্ট এর মিল সংলগ্ন রাস্তায় এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। গত ১৩ জুন রহনপুর আড্ডা আঞ্চলিক সড়কে গাছের গুঁড়ি ফেলে ৫ জনের মোবাইল ও টাকা ছিনতাই করে। আবার ১৪ দিনের মাথায় পার্বতীপুর ইউনিয়নের আড্ডা জিনারপুর গ্রামে পারভেজ তার ব্যক্তিগত প্রাইভেটকার নিয়ে রহনপুর থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে ডাকাতের কবলে পড়ে। ডাকাতরা তার একটি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল সেট,যার মূল্য ৩০ হাজার টাকা, এবং পকেট থেকে ২০ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। কোনরকমে প্রাণে রক্ষা পেয়ে গাড়ি নিয়ে সে বাসায় ফিরে যায়। গত ৯ জুলাই রহনপুর ইউনিয়নের মিশনে বিদ্যুতের খুঁটি ফেলে ওই জায়গায় গণহারে ডাকাতি করে ডাকাতরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি জানান,৯৯৯ এ কল দিয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশের কোনো সেবা পাওয়া যায়নি। এভাবে যদি ডাকাতি চলতে থাকে তাহলে অধিকাংশ মানুষ ক্ষতির মুখে পড়বে। করোনাকালীন সময়ে মানুষের আয় কমে যাওয়ার ফলে এমনটি ঘটে থাকতে পারে বলে ধারনা সচেতনত মহলের।

ডাকাতির বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,রোডের ধারে বৈদ্যুতিক খুঁটি সরানোর জন্য নেসকো লিঃ গোমস্তাপুর জোনের নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগ করে খুঁটি সরানোর জন্য বলা হয়েছে। কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওই খুঁটিগুলো বিদ্যুতের লাইন সম্প্রসারণের জন্য রেখেছে।করোনাকালীন সময়ে তারা কাজ বন্ধ রেখেছে। কাজ শুরু করলে তারা ওখান থেকে পর্যায়ক্রমে বিদ্যুতের খুঁটি গুলো সরিয়ে ফেলবে।তিনি আরো জানান, ডাকাতির ঘটনা শোনার পর ওই সড়কে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে এবং এই কাজে যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভুক্তভোগীরা যদি কেউ অভিযোগ করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অপরদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রসাশন) চাঁপাইনবাবগঞ্জ মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান (পিপিএম) এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। এবং সংশ্লিষ্ট থানায় কোনো মামলা হয়নি। আপনার কাছ থেকে প্রথম জানলাম। যদি সেটি হয়ে থাকে ওই সড়কে তাহলে আমরা দ্রুত আইনি প্রক্রিয়ায় গ্রহণ করবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!