রংপুর বিভাগীয় ব্যাুরো প্রধান ফিরোজ মাহমুদ।।

সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন বিধিনিষেধের কারণে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মানুষের চলাফেরা। বন্ধ রাখা হয়েছে গণপরিবহন। সড়ক থেকে হাটে-বাজারে সবখানে জনসমাগম ঠেকাতে তৎপর প্রশাসন। এ পরিস্থিতিতে হাঁড়িভাঙা আম নিয়ে বিপাকে পড়েছেন রংপুরের আম চাষি ও ব্যবসায়ীরা কৃষি বিভাগ জানিয়েছে এবার ৩ হাজার ৩শ,হেক্টর জমিতে আমের চাষ করা হয়েছে। এর মধ্যে হাঁড়ি ভাঙ্গা আমের ফলন ধরা হয়েছে ৩০ হাজার মেট্রিকটন যার মুল্য প্রায় ২০০ কোটি টাকা।গত ২০ জুনের পর থেকে হাড়িভাঙ্গা আম বিক্রি করেছে চাষিরা আর তার পর বাজারে আসতে শুরু করে এই আম।বিশেষ করে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় এই হাঁড়ি ভাঙ্গা আমের জন্ম,ফলে মিঠাপুকুর উপজেলায় আমচাষীর সংখ্যাও বেশি,এরপর রয়েছে বদরগঞ্জ, তারাগঞ্জ ও রংপুর সদর উপজেলা।আম চাষিরা জানায়, গতবারের চেয়ে এবছর আমের ফলন ভালো হয়েছে,পোকা মাকড় কম।খরচ অনেক কমে এসেছে। ঠিক ভাবে আমের দাম পেলে অনেক লাভবান হওয়া যেতো, কিন্তু করোনার কারনে ঠিক ভাবে দাম পাওয়া যাচ্ছে না।ব্যাবসায়ীরা জানান কঠোর লকডাউন চলছে সবকিছুই বন্ধ, তাই আম বিক্রি করতে পারছিনা
দিন যাচ্ছে হাঁড়ি ভাঙ্গা আমের চাহিদা বাড়ছে কিন্তু বাহিরের জেলা গুলোতে আম পাঠানো খুবেই কষ্টকর বিষয় হয়ে দাঁড়িয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!