আহসান হাবীব

স্টাফ রিপোর্টারঃ

লক্ষ্মীপুর রায়পুরে আজ (১৪ জুলাই)২০২১ইং রোজ বুধবার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান “পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ” এর ২য় মৃত্যু বার্ষিকী।
এ উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজনের করেছেন উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্টপোষক, লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার কৃতি সন্তান বোরহান উদ্দিন( মিঠু)। তিনি বর্তমানে নোয়াখালী জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

আজ ১৪ জুলাই দুপুরে মিলাদের পর রায়পুরের প্রায় দুই হাজার গরীর অসহায়দের মধ্যে তবারক বিতরণ করা হয়। উক্ত তবারক বিতরণ ও মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন রায়পুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সকল নেতাকর্মীবৃন্দ।

এই সময় তিনি বলেন, দু’বছর আগে এই দিনে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন আমার প্রাণপ্রিয় নেতা হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদ।
সাবেক সফল রাষ্ট্রপতি, জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, বাংলাদেশের উন্নয়নের কিংবদন্তি, কালজয়ী নেতা পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ নেই তিন’বছর হলো। দেশের রাজনীতিতে তার অভাব প্রতি মুহূর্তে অনুভূত হচ্ছে। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, ততদিন অক্ষয় হয়ে থাকবে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের র্কীর্তি। দেশের উন্নয়ন, সুশাসন, সম্প্রীতি, অর্থনীতি, সমাজনীতি এবং সহনশীল রাজনীতিতে আজীবন পথ দেখাবে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।
বাংলাদেশের পঞ্চাশ বছরের ইতিহাসে সম্প্রীতির রাজনীতিতে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের তুলনা হয় না।

১৯৩০ সালের ২০ মার্চ কুড়িগ্রাম শহরের “লাল দালান” বাড়ি খ্যাত নানাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন পেয়ারা নামের যে শিশু, সেই শিশুই বড় হয়ে উন্নয়নের এক অনন্য ইতিহাস রচনা করেছেন বাংলাদেশে। শিশু পেয়ারা বড় হয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ নামে সাফল্যের সাথে সেনাবাহিনী প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। রাষ্ট্র পরিচালনা করেছেন দীর্ঘ নয় বছর। প্রতিষ্ঠিত করেছেন জাতীয় পার্টির মত একটি জননন্দিত রাজনৈতিক দল।
রাষ্ট্র ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার পর থেকে অংশ নেয়া প্রতিটি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!