মোঃ ইমরান হোসাইন মৃধা
ভ্রাম্যমাণ রিপোর্টার

আজ বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী জেলার,রাঙ্গাবালি উপজেলার,নেতা গ্রামের সাপুরে নুরু সরদার কে আজ সকালে দাড়াশ সাপ ধরতে দেখে এনিম্যাল লাভারস অফ পটুয়াখালী প্রাণীকল্যান সংগঠন এর রাঙ্গাবালি উপজেলা টিমের সদস্য মোহাম্মদ নিপু ,সে তাৎক্ষনিক সাপুরে কে সাপ ধরার কারন জানতে চায়,সাপুরে মুলত রাঙ্গাবালি উপজেলা থেকে বিভিন্ন সময়ে সাপ ধরে এবং বিক্রি করতো বিভিন্ন সাপ খামারীদের কাছে।

পরবর্তীতে মোহাম্মদ নিপু তাকে বন্যপ্রাণী আইন সম্পর্কে সচেতন করেন এবং তার কাছে থাকা সাপ গুলো অবমুক্ত করার জন্য বলেন এবং সে রাজি হয়। সাপুড়ে বন্যপ্রাণী আইন সম্পর্কে অবগত না থাকার কারনে প্রথমবার এর মত তাকে ক্ষমা করে দেয়া হয় এবং তিনি পরবর্তীতে যখন কোথাও থেকে সাপ উদ্ধার করবেন তখন আমাদের উপস্থিতিতে সে অবমুক্ত করবে বলে স্বীকার করেন।

সাপুড়ের কাছ থেকে ১ টি পদ্মগোখরা(বিষধর) এবং ১ টা দাড়াশ(নির্বিষ) সাপ উদ্ধার করে এ.এস.এম জহির উদ্দিন আকন(পরিচালক,বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট) স্যারের নির্দেশনায়, মোঃ সোয়েব খান(বীট কর্মকর্তা,বন বিভাগ,রাঙ্গাবালি,পটুয়াখালী) এবং মোহাম্মদ নিপু(এনিম্যাল লাভারস অফ পটুয়াখালী,রাঙ্গাবালি উপজেলা টিমের সদস্য,র) উপস্থিতিতে প্রাকৃতিক পরিবেশে অবমুক্ত করা হয়।

উল্লেখ্য ১১ জুলাই পটুয়াখালী সদর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রাম থেকে ১ টি খৈয়া গোখরা সাপের বাচ্চা এবং ১২ জুলাই কলাপাড়া উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়ন থেকে ১ টি Banded Krait(শঙ্খিনী,বিষধর) সাপ বন বিভাগের সহায়তায় উদ্ধার করে প্রাকৃতিক পরিবেশে অবমুক্ত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!